𝐂𝐡𝐚𝐤 𝐃𝐞! 𝐈𝐧𝐝𝐢𝐚 (2007) হিন্দি মুভি বাংলা রিভিউ ডাউনলোড

 15 𝐘𝐞𝐚𝐫𝐬 𝐎𝐟  "𝐂𝐡𝐚𝐤 𝐃𝐞! 𝐈𝐧𝐝𝐢𝐚" (2007)


🔸মুভি ⇨ চাক দে! ইন্ডিয়া ( ১০/০৮/২০০৭)

🔸অভিনয় ⇨ শাহরুখ খান ও আরো অনেকে  

🔸পরিচালক ⇨ শিমিত আমিন  



দেখে নেওয়া যাক Chak De India সিনেমার বক্স অফিস কার্ড - 

---------------------------------------------------------------

• বাজেট - ২২ কোটি। 

★ সিনেমা হল সংখ্যা - ৫০০ টি 

• নেট গ্রোস - ৬৬.৫৪ কোটি।

• ওভারসীস গ্রোস - 3.94 Million USD

• ওয়ার্ল্ডওয়াইড গ্রোস - ১০২ কোটি। 

• ডমেস্টিক ফুটফলস - ১.৪০ কোটি। 


         💥  ফলাফল - সুপার হিট  💥


------------------------------------------------------------------------ 


জানা অজানা ফ্যাক্ট - 


✪ সিনেমাটি প্রথম সালমান খান সাইন করেন। পরবর্তীতে ডিরেক্টর এর সাথে ক্রিয়েটিভ ডিফারেন্স  এর কারনে ছেড়ে দেন। পরবর্তীতে সালমান বিভিন্ন যায়গায় ইন্টারভিউয়ে জানিয়েছেন তিনি কমার্শিয়াল ইমেজের হিরো। তার সাথে এই সিনেমা যায়না। আবার এক যায়গায় বলেছিলেন টাইটেলে ইন্ডিয়া নামটা নিয়েও তার আপত্তি ছিলো। শাহরুখ খানও সিনেমাটি শিডিউল না মেলার কারনে ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন কিন্ত হকির প্রতি বিশেষ টানের কারনে তিনি ফিল্মটি করতে রাজি হন। 


✪ সিনেমাটি আশানুরূপ ওপেনিং আসেনি। YRF ব্যাক টু ব্যাক ফ্লপ থাকা ও ডিস্ট্রিবিউটার ও মাল্টিপ্লেক্স চেইনের সাথে YRF এর ঝামেলার কারনে খুবই কম স্ক্রিনে রিলিজ হয়। শাহরুখের রোমান্টিক ইমেজের বাহিরের সিনেমা হওয়ায় Buzz ও আগ্রহও কম ছিলো। প্রচারণাও কম ছিলো।


✪ সিনেমার ফিমেল খেলোয়াড়দের চরিত্র বাছাই করতে প্রায় ছয় মাস লেগেছে এর পর ট্রেনিং তো আছেই। 


✪ ডিরেক্টর ও একশন ডিরেক্টর এতটাই খুতখুতে ছিলো যে শাহরুখ খানের মিস পেনাল্টি টাই শুট করতে ২০ ঘন্টা লাগিয়েছে। তারা আরো নিখুঁত করতে চাইছিলো। ডিরেক্টর যতবারই রিটেক নিক শাহরুখের কোনো আপত্তি ছিল না যেটার প্রশংসা ডিরেক্টর আলাদাভাবে করেছেন। 


✪ ক্ল্যাইম্যাক্সের শাহরুখের অভিনয়ের ভূয়সী প্রশংসা করেন এই খুতখুতে ডিরেক্টরও। তিনি বলেন প্রজেক্ট শুরুর আগে আমি ভেবেছিলাম যেমনটা আমি চাচ্ছিলাম তেমন পারফরম্যান্স হয়ত শাহরুখ নাও পারতে পারে। সে ক্রমে ক্রমে আমাকে ভুল প্রমাণ করে। ক্ল্যাইমাক্স সিনে তার অভিনয় আমাকে পুরোপুরি ভুল প্রমাণ করে। শাহরুখের অভিনয় ক্ষমতা কেমন তা আমি ক্ল্যাইম্যাক্স শুট করার সময় উপলব্ধি করতে পারি। 


✪ Rotten Tomatoes এ ৯২% ফ্রেশ রেটিং, মেটাক্রিটিক্স থেকে এভারেজ ৭.২/১০ রেটিং। IMDB Rating - 8.2/10 


✪ মিডিয়ার মতে CDI - AHEAD OF ITS TIME ও বলিউডের অন্যতম মাইলস্টোন ফিল্ম।সিনেমার রাইটার জয়দ্বীপের মতে এই সিনেমা বর্তমান বাজারে মুক্তি পেলে রেকর্ড বিজনেস করতো কারন বর্তমান ফিল্ম অডিয়েন্সের কাছে এমন সিনেমার চাহিদা বেড়েছে। 


✪ চাক দে ইন্ডিয়া টাইটেল ট্রাক আন অফিশিয়ালি ইন্ডিয়ার স্পোর্টস সং। ভারত বিশ্বকাপ জেতার পর বিরাট কহলী দর্শকের সাথে সমস্বরে Chak De Chak De India গেয়েছিলেন। 


✪ CDI এর পর সরকারের হকির প্রতি আলাদা মনোযোগ দিয়েছিলো। হকি ফেডারেশনে আমূল পরিবর্তন আসে। 


✪ সিনেমাটি ৫ টি ক্যাটাগরিতে ফিল্মফেয়ার পায়, ১ টি ন্যাশনাল সহ অসংখ্য এওয়ার্ড জয় করে। 


✪ টানা তিনটি আন্ডারপার্ফম ফিল্মের পর CDI প্রোডাকশন হাউজ Yash Raj এর কামব্যাক ফিল্ম দিয়ে ট্রাকে আনেন শাহরুখ। 


✪ সিনেমাটি বছরের তৃতীয় হায়েস্ট গ্রোসার ছিলো।


Chak De India 


অনেক অডিয়েন্স ও ক্রিটিক্সের মতে বলিউডের Best Ever Sports Drama। শাহরুখ এর ভিন্ন ধারার সিনেমায় সার্কেলের বাহিরে যেয়েও কিছু জিনিশ থাকে। উদাহরণ - স্বদেশ, চাক দে ইন্ডিয়া। শুধু দেশ আর Patriotism এর হরমোন নিয়ে খেলা নয় বরং দেশের সমস্যাগুলোর দিকে আঙ্গুল তোলার শুরুটা এসব সিনেমা দিয়েই শুরু হয়। তো চলুন জানা যাক- 


Why Chak De India... Is The Best Bollywood Sports Film Ever ? 


• প্রথম যেটা লক্ষ্যনীয় ভার‍তীয় স্পোর্টস ড্রামায় সাধারণত না প্রকৃত স্পোর্টস এর রুলস টা জেনে বানানো হয় না। যার ফলে রুলস রেগুলেশন ও ভালোভাবে উপস্থাপন টা হয়না। সেদিক থেকে  CDI ছিলো উল্টো সিনেমায় হকিকে একদম বাস্তবভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। 


• CDI শুধু স্পোর্টস ড্রামা নয় বরং দেশপ্রেম নিয়েও। এক দেশ এক আবেগ। স্পোর্টস দিয়ে ও স্পোর্টসম্যানের দেশপ্রেমের সুন্দর উপস্থাপন ছিলো। 


• CDI শুধু দেশপ্রেম আর Sports নয় দেশের সমস্যা ও মেন্টালিটির উপরেও প্রশ্ন গুলো ছুড়ে মেরেছে সাহসিকতার সাথেই - 


• নারী পুরূষ বৈষম্য যে Sports সেক্টরেও দেশের আর পাচটা যায়গার মত আছে, সেটায় প্রশ্ন তোলা হয়েছে। 


• আজো যে স্টেট/রাজ্য, রিলিজিয়ন/ধর্ম, জাত-পাত নিয়ে বৈষম্য ও হেট্রেড মানুষের মাঝে আছে, সেটার দিকে আঙ্গুল তোলা হয়েছে। 


• ধর্মবৈষম্য অথবা বংশীয় প্রাইড, স্বামী স্ত্রীর ভিতরে স্বাধীনতা, গুরুত্ব ও অসমতা এগুলোর উপরে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। 


• একজন মানুষের ধর্মের কারনে দেশের মানুষের ঘৃণার পাত্র হওয়া কোচকে দেখানো হয়েছে। যে মিথ্যা ঘৃণা অপমানের পরও সেই দেশের মানুষের প্রতি আর দেশের প্রতি আজীবন সম্মান দেখিয়ে গেছে। শেষ অব্দি দেশের সম্মান এনে দিয়ে সেই ঘৃণা করা মানুষের থেকেই ভালবাসা জয় করে এনেছে। এটা উপমহাদেশের সংখ্যালঘু ও সংখ্যাগরিষ্ঠ উভয়ের জন্য শিক্ষামূলক - শুধু মাত্র জাত পাত ধর্মের জন্য কারোর প্রতি অন্ধ ঘৃণা না করা। আর অন্যদিকে কেউ বুলিং বা ঘৃণার শিকার হবার পরেও যেন নিজের পথ না হারিয়ে দেশ ও নিজের দেশের ভাইদের বিরুদ্ধে না যায় সেই ধর্য্যের শিক্ষা উভয় দিকেই শিক্ষা দেয়। 


• নিয়ময়ানুবর্তীতা ও স্ট্রং গেম প্লান স্ট্রাটেজি যেমন ছিল সাথে ছিলো আবেগের মিশ্রন। আর পাচটা বলিউড সিনেমায় দেখানো হয় আবেগেই অবাস্তব বাস্তব হয়ে যায়। কিন্ত CDI আবেগের সাথে সাথে স্ট্রাটেজি দিয়ে ব্যাপারটা জাস্টিফাই করেছে। 


• একতা ও অনুপ্রেরণা। চাক দে.... চাক দে ইন্ডিয়া আজো এক অনুপ্রেরণা মূলক গানের নাম। আজো স্পোর্টস ইভেন্টে খেলোয়াড়দের জোশ জাগাতে এই গান ব্যবহার করা হয়। CDI এক অনুপ্রেরণার নাম। অন্যদিকে একতাই বল তথা যেকোনো অসমতাকে ভুলে সাম্যবাদী চিন্তা চেতনায় একতাবদ্ধ হয়ে লড়লে জয় আসবেই সে শিক্ষা দেয়। শুধু হকি এখানে মেটাফোর হকি দিয়ে দেশের মূল অনেক সমস্যা ও সমাধানেও ইঙ্গিত ছিলো। 


• হকি। এর আগে ভারতের যত স্পোর্টস সিনেমা হয়েছে তার পুরোটাই প্রায় ক্রিকেট নিয়ে। ব্যাপারটা এমন হয়ে দাড়িয়েছিলো সবাই তেলা মাথায় তেল দিয়ে যাচ্ছে। CDI আন্ডারেটেড স্পোর্ট ও যেখানে আসলেই ভারত স্ট্রং সেই আন্ডাররেটেড হকিকে প্রোমোট করেছে। শুধু হকি নয় সেটাও ফিমেল হকি। যেখানে CDI এর আগে বলিউডে কোনো ভাল ফিমেল স্পোর্টস ফিল্ম বা হকি বেজড স্পোর্টস ফিল্ম ছিলো না। 


এতগুলো কারণ এর পর আর বর্ণনার পর প্রয়োজন পড়েনা কেন CDI মাস্টারপিস ও বেস্ট। CDI Is More Than A Sports Film.


©️Ⓜ️ Box Office Freak Bd - Vol. 3

Attention : – Pls Visit Our সকল মুভি ডাউনলোড করুুন আমাদের মুভি ডাউনলোড ওয়েবসাইট থেকে and মুভি ডাউনলোড করতে না পারলে জয়েন করুুন টেলিগ্রামে এবং ডাউনলোড করার পিন ভিডিও দেখুন। Join Telegram Group

0 Response to "𝐂𝐡𝐚𝐤 𝐃𝐞! 𝐈𝐧𝐝𝐢𝐚 (2007) হিন্দি মুভি বাংলা রিভিউ ডাউনলোড "

Post a Comment